বুধবার, ডিসেম্বর ২, ২০২০
Home ঢাকার চাকা ক্রাইম সিন আমি সবসময় চেষ্টা করি, যেন ওরা বেশি ব্যথা না পায়ঃ মানবিক বলাৎকারকারী

আমি সবসময় চেষ্টা করি, যেন ওরা বেশি ব্যথা না পায়ঃ মানবিক বলাৎকারকারী

“স্যার, ওরা তো খুব ছোট। তাই আমি সবসময় চেষ্টা করি, যেন ওরা বেশি ব্যথা না পায়। আমি তো ওদের শিক্ষক, ওরা ব্যথা পেয়ে কান্নাকাটি করলে আমার খুব কষ্ট লাগে”। ভাষ্যটি চট্টগ্রামের একটি মাদ্রাসার শিক্ষক নাছির উদ্দিন (৩৫) এর। নিয়মিত অগণিত শিশুকে তার লালসার শিকারে পরিণত করলেও গ্রেপ্তার হবার পর আমাদের প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে ধর্ষিতদের প্রতি এমনই সদয় তিনি!!!

নাছিরের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের ফিরিস্তি শুনলে এই মায়াবাক্যাকে আপনার কাছে পরিহাসই মনে হবে। মাদ্রাসার হোস্টেলের ইনচার্জ হিসেবে দায়িত্বে থাকার সুযোগ নিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে অনেক শিশু ছাত্রকেই নিয়মিত বিছানার সঙ্গী করেন তিনি। ঘটনা সংক্রান্তে প্রাথমিক অনুসন্ধান চালাতে গিয়ে যা বের হয়ে আসে, তাতে শিউরে উঠবেন যেকোনো বিবেকবান মানুষই। ধর্ষণ করার জন্য মূলত দশ বছরের নিচে বয়সী ছেলে শিশুদেরকেই টার্গেট করতেন তিনি। কোন শিশু তার আহ্বানে সাড়া না দিলে তাকে বাধ্য করার জন্য কারণে অকারণে তাকে বেধড়ক মারধোর করা হতো। যেহেতু সেখানে বেশিরভাগ শিশুই এতিম/দরিদ্র পরিবার থেকে আসা, শেষপর্যন্ত তার পক্ষে হুজুরের প্রস্তাবে হ্যাঁ বলা ভিন্ন কোন উপায় থাকতো না। নাছিরের ছেলেশিশু আসক্তি এমন পর্যায়ে উন্নীত হয়েছিলো যে, বিষয়টি টের পেয়ে তার স্ত্রী তিন বছরের সন্তানকে নিয়ে তাকে ছেড়ে চলে যান।

ধর্ষিত শিশুর প্রতি সহমর্মি হবার পাশাপাশি নাছির আবার ভীষণ রকম নিয়মনিষ্ঠও। বিশৃঙ্খলা তার একদমই নাপছন্দ। তাই তো তিনি একেবারে রুটিন করে দিয়েছেন, ওস্তাদের খেদমতে কবে কখন কোন শিশু হাজির হবে। যেন সেই গল্পের অত্যাচারী সিংহের মতো, যে কিনা বনের পশুদের সাথে চুক্তি করেছিল যে, প্রতিদিন একটি করে প্রাণী খাবার হিসেবে তার নিকট চলে আসলে সে আর যারতার ওপর অত্যাচার করবে না। এই করে বেশ ভালমতোই চলে আসছিল শিক্ষকতার আড়ালে তার বেপরোয়া বিকৃত যৌনজীবন। ছাত্ররাও মারধর, হুমকিধামকির ভয়ে নীরবে নিশ্চুপে সব সয়ে যাচ্ছিলো।

ঝামেলা শুরু হয় গতকাল সন্ধ্যায়। এক অভিভাবকের কাছ থেকে প্রাথমিক অভিযোগ পাবার পর আমাদের বিশদ অনুসন্ধানে উঠে আসে বলাৎকারকারী নাছিরের গোপন বিকৃত যৌনজীবনের অবিশ্বাস্য সব খতিয়ান। তারপর আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দায়ের এবং মধ্যরাতে পরিচালিত আমাদের অভিযানে গ্রেপ্তার ভণ্ড হুজুর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন। কিন্তু গ্রেপ্তারের পর রীতিমতো ভোল পালটে ফেলেন তিনি। বারবার আমাদের নিকট দাবি করতে থাকেন, তিনি নাকি কাউকে জোর করে বিছানায় নিতেন না, ছাত্ররাই নাকি স্বেচ্ছায় তার সঙ্গ নিতে আসতো। যদিও গরিব ঘরের অসহায় ছেলেগুলোর সাথে দিনের পর দিন কোন কৌশলে, কি কি ঘটিয়েছে নরপশু নাছির, তা আমাদের অজানা ছিল না।

সুখের বিষয় হলো, আজ সকালে আদালতে পাঠানো হলে গ্রেপ্তারকৃত নাছির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়ে তার বিরুদ্ধে আনীত বলাৎকারের অভিযোগ স্বীকার করে নেন। পাশাপাশি বলাৎকারের শিকার শিশুদের মধ্যে চারজনও আদালতে উপস্থিত হয়ে তাদের উপর চালানো নির্মমতার বর্ণনা দেয়। ইনশাআল্লাহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিই হবে তার। অভিভাবকদের প্রতি অনুরোধ, আপনার শিশু ছেলে বা মেয়ে যাই হোক, তার নিরাপত্তার দিকটি বিবেচনায় রাখুন। শিক্ষক হোক, আত্মীয় হোক কিংবা হোক প্রতিবেশী, আপনার সন্তানকে কারো অরক্ষিত শিকারে পরিণত হবার সুযোগ দিবেন না প্লিজ।

লিখেছেন – মোঃ আনোয়ার হোসেন (শামীম আনোয়ার), সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি), রাঙ্গুনিয়া সার্কেল, চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ।

- Advertisement -

সাথে থাকুন

16,985FansLike
2,000FollowersFollow
3,600FollowersFollow
2,458FollowersFollow
4,251SubscribersSubscribe

বিশ্বজুড়ে

শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানীকে হত্যার প্রতিশোধ নেবে ইরান

0
ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী মহসেন ফখরিজাদেহকে নির্মমভাব হত্যার কঠোর প্রতিশোধ নেয়া হবে বলে হুমকি দিয়েছে দেশটি।গতকাল তার মৃত্যুর পর এ ঘোষণা দিয়েছেন ইরানের সুপ্রিম...

হাসপাতালে মরদেহ খুবলে খাওয়ার চেষ্টা করছে কুকুর

0
হাসপাতালের স্ট্রের মধ্যে একটি মরদেহ সাদা চাদরে ঢাকা। মরদেহের পাশেই একটি কুকুর দাঁড়িয়ে আছে। কুকুরটি মরদেহটি খুবলে খাওয়ার চেষ্টা করে যাচ্ছে। উত্তরপ্রদেশের একটি হাসপাতালে...

এবার ‘রামের’ নামে অযোধ্যা বিমানবন্দর

0
বাবরি মসজিদের স্থলে রাম মন্দির নির্মাণের কাজ শুরুর পর এবার অযোধ্যা বিমানবন্দরের নাম বদলে ‘মর্যাদা পুরুষোত্তম শ্রীরাম বিমানবন্দর’ করার প্রস্তাব পাশ হয়েছে উত্তরপ্রদেশ সরকারের...

দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশিকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা

0
দক্ষিণ আফ্রিকায় এক মালাওয়ি নাগরিক ঘুমন্ত অবস্থায় বাংলাদেশি জাহিদ হাসান জিতুকে (৩৫) হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।গত ২০ নভেম্বর গভীর রাতে ইস্টার্নকেপ...

পুলিশের ইউনিফর্মে হিজাব যুক্ত করল নিউজিল্যান্ড

0
মুসলিম ধর্মাবলম্বী নারী পুলিশ সদস্যদের ইউনিফর্মের সঙ্গে হিজাব পরার অনুমতি দিয়েছে নিউজিল্যান্ড।এ বাহিনীতে যোগ দেওয়া কনস্টেবল জিনা আলী দেশটির প্রথম হিজাব পরিহিতা পুলিশ সদস্য...
- Advertisement -

সর্বশেষ খবর

৯ তলা ভবনের ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়লেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী

0
কুমিল্লায় নির্মাণাধীন ৯ তলা ভবনের ছাদ থেকে লাফিয়ে পড়ে জান্নাতুল হাসিন (২৩) নামে এক বিশ্ববিদ্যালয়...

মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় মায়ের আঙুল কেটে দিল বখাটেরা

0
সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলায় মায়ের হাতের আঙুল কেটে দিয়েছে বখাটেরা। মায়ের স্বপ্ন তার মেয়ে ডাক্তার হয়ে...

এই মুহূর্তে ওমরায় যাওয়ার সুযোগ নেই : ধর্মবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক

0
ধর্মবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে বাংলাদেশ থেকে ওমরাহ করার কোন সুযোগ নেই। ভবিষ্যতে...

এসএসসির রেজিস্ট্রেশন কার্ড বিতরণ শুরু ২ ডিসেম্বর

0
২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের রেজিস্ট্রেশন কার্ড বিতরণ আগামীকাল (২ ডিসেম্বর) থেকে শুরু করবে ঢাকা বোর্ড।শিক্ষার্থীরা...

জামায়াত আমির শফিকুর রহমান করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত

0
প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বাংলাদেশ জামায়াত ইসলামীর আমির ডা. শফিকুর রহমান।গতকাল (৩০ নভেম্বর) সন্ধ্যায়...

বিষধর রাসেল ভাইপার ধরে বস্তায় ভরে বাড়িতে নিয়ে এলেন যুবক

0
ভোলায় বিষধর সাপ ‘কিলিংমেশিন’ খ্যাত রাসেল ভাইপার উদ্ধার করা হয়েছে।আজ(১ ডিসেম্বর) সকালে ভোলা সদর উপজেলার...

চাঁদপুরে লরিচাপায় প্রাণ গেল দু’জনের

0
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে তেলের লরি ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে ২জন নিহত হয়েছেন।নিহতরা হলেন- অটোরিকশার চালক...

কোনো মুসলিমকে ভোটের টিকিট দেব না : বিজেপির মন্ত্রী

0
ভারতের কর্ণাটক রাজ্যের মন্ত্রী ও বিজেপি নেতা কেএস ঈশ্বরাপ্পা জানান, নির্বাচনে কখনোই কোনো মুসলিমকে মনোনায়ন...

ইউনাইটেড হসপিটালে সুসমন্বিত ‘ইউনাইটেড ডায়াবেটিস সেন্টার’ -এর যাত্রা শুরু

0
বাংলাদেশে ডায়াবেটিস রোগী প্রায় এক কোটি, আরো এক কোটি  নির্ণয়ের অপেক্ষায়। মাত্র সাড়ে ২৪ ভাগ...

ভাস্কর্যকে মূর্তির সাথে তুলনা বিভ্রান্তি-উস্কানির অপচেষ্টা মাত্র – তথ্যমন্ত্রী

0
‘ভাস্কর্যকে মূর্তির সাথে তুলনা করে বিভ্রান্তি ছড়ানো ও উস্কানি দেয়ার অপচেষ্টা পরিহার করুন’ বলেছেন তথ্যমন্ত্রী...
- Advertisement -